Principal Comment

প্রফেসর মোঃ রেজাউল করিম 
অধ্যক্ষ 
সরকারি গোলাম হায়দার খান মহিলা কলেজ 
শরিয়তপুর।

সরকারি গোলাম হায়দার খান মহিলা কলেজ বর্তমানে শরিয়তপুর জেলা ও এর পার্শ্ববর্তী অঞ্চলসমূহের নারী শিক্ষা বিস্তারে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে। কলেজটি ১৯৯৪ খ্রি. প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৯৭ খ্রি. বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় এটি জাতীয়করণ করা হয়। জাতীয়করণের পর থেকে কলেজে কর্মরত শিক্ষক ও অসংখ্য শুভার্থীদের অক্লান্ত পরিশ্রমে কলেজটি এখন পত্র পল্লবে এবং পুষ্পে সুশোভিত হয়ে মহীরুহের রূপ ধারণ করেছে। বর্তমানে কলেজের কলেবর বহুগুনে বৃদ্ধি পেয়েছে। কলেজটিতে বর্তমানে ছাত্রীদের জন্য বিনা বেতনে উচ্চ মাধ্যমিক ও ডিগ্রী(পাস) কোর্স চালু রয়েছে। হাতেগোনা যে কজন ছাত্রী নিয়ে কলেজটি যাত্রা শুরূ করেছিল তা আজ ৭০০ জনে পৌঁছেছে।শিক্ষকের পদ সংখ্যা ও ২৮ টিতে উত্তীন্ন হয়েছে।রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নে প্রযুক্তির ব্যবহার অনস্বীকার্য ।তার একটি মাধ্যম হলো অনলাইনের মাধ্যমে সকল প্রশাসনিক ও একাডেমিক তথ্য উপাত্ত প্রদান করা । সে লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য বর্তমান সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ইন্টার‍্যাক্টিভ ওয়েবসাইট তৈরির জন্য নির্দেশনা প্রদান করেছে।সে জন্য আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য নিজস্ব ওয়েবসাইট চালু করেছি। এর মাধ্যমে শিক্ষকগন তাদের পাঠ পরিকল্পনা,এ্যাসাইনমেন্ট,লেকচারপেপার সহজে ওয়েবসাইটে দিতে পারবে আর শিক্ষার্থীরা ও আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে তা সংগ্রহ করতে পারবে।এছাড়া প্রতিষ্ঠানের দৈনন্দিন কাজ,ভর্তি কার্যক্রম,সাধারন নোটিশ,ফলাফল এবং প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী কলেজের ওয়েবসাইটে অন্তর্ভূক্ত থাকবে। এর মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানের পথ সুগম হবে বলে আমাদের বিশ্বাস। যুগের চাহিদা অনুসারে প্রতিষ্ঠানকে আরো সমৃদ্ধ ও যুগোপযোগী করার জন্য কলেজের শিক্ষক,কর্মকর্তা,কর্মচারী ও ছাত্রীবৃন্দ নিরলস প্রচেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের সে প্রচেষ্ঠা সাফল্যমণ্ডিত হোক এ আমার প্রার্থণা।